Home Home Page Rank NTV ONLINE ETV ONLINE BANGLA  VISION ONLINE CHANEL I ONLINE EKATTOR TV ONLINE
৩০-০৯-২০১৪ মঙ্গলবার

 দৈনিক সিলেট ডটকম সিলেট বিভাগের সর্বাধিক জনপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল-আমাদের সাথে থাকুন, নিজেকে আপডেট রাখুন...   

 
 
 
মোবাইল ভার্সনে যারা আছেন
Free Global Counter
 
এই জনপদ
 
 
 
 
 

সিলেট, ৩০ সেপ্টেম্বর;
ভুল মুদ্রণকৃত কোরআন শরীফের সকল কপি বাজেয়াপ্তকরা এবং পবিত্র হজ্ব নিয়ে কটূক্তিকারী ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী আব্দুল লতিফ সিদ্দিকির দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তির দাবীতে মঙ্গলবার সিলেট কোর্টপয়েন্টে বিক্ষোভ সমাবেশ ও মানব বন্ধন কর্মসুচি পালন করেছে মাদানী কাফেলা বাংলাদেশ ও মুসলিম ঐক্যপরিষদ। মানব বন্ধনে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন, প্যানেল মেয়র রেজাউল করিম কয়েস লোদী। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, সিলেট মহানগর জমিয়তের সাধারণ সম্পাদক অধক্ষ আব্দুর রহমান সিদ্দিকী। বাদ আছর সিলেট জেলা ইসলামী ঐক্যজোটের সভাপতি মাওলানা আছলাম রহমানীর সভাপতিত্বে হাফিজ শাহিদ আহমদ হাতিমীর  পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সভায় বক্তব্য রাখেন, মাওলানা  মাশুক আহমদ ছালামী, গণদাবী পরিষদের সহসভাপতি ডা. আখলাক আহমদ চৌধুরী, মাদানী কাফেলার সভাপতি মাওলানা রুহুল আমীন নগরী, এডভোকেট মাওলানা নাসির উদ্দীন, মাওলানা আব্দুল মুকিত চেীধুরী, মাওলানা আখতারুজ্জামান, মাওলানা রেজাউল কারীম রেজা,মাওলানা বদরুল আলম,মাওলানা এম বেলাল আহমদ চৌধুরী, সাংবাদিক মিসবাহ মনজুর, হাফিজ শাহ আদনান, মাওলানা আবু খয়ের, জাবেদ আলম কুরেশী, মাষ্টার আব্দুল আজিজ, দিদার লস্কর, মাওলানা নাজমুল হাসান, মাওলানা মুশতাক আহমদ,মাওলানা রেজওয়ান আহমদ, হাফিজ আব্দুল করিম দিলদার, সৈয়দ উবায়দুর রহমান, সৈয়দ হাফিজ উদ্দীন, মাওলানা কায়সান মাহমুদ, জাবের আল আদনান, মাওলানা মশতাক আহমদ, হাফিজ আব্দুল করিম দিলদার, আল আমিন সাদিক প্রমুখ। নেতৃবৃন্দ বলেন, অবিলম্বে মন্ত্রী আব্দুল লতিফ সিদ্দিকিকে গ্রেপ্তার করে দৃষ্টান্ত মুলক শাস্তি দিতে হবে। তারা বিভিন্ন প্রকাশনি কর্তৃক ভুল ছাপাকৃত কোরআনের সকল কপি বাজেয়াপ্তের দাবী জানিয়ে বলেন, এটা ইসলামের বিরুদ্ধে এক সুগভীর ষড়যন্ত্রবলে আমরা মনেকরছি। প্রধান অতিথির বক্তব্যে কয়েস লোদী  লতিফ সিদ্দিকীকে সিলেটে অবাঞ্চিত ঘোষণা করে বলেন, পবিত্র হজ্বের বিরুদ্ধে কথা বলা এবং কোরআন শরীফ বিকৃতকরে ছাপিয়ে বাজারজাত করা একই সুত্রে গাতা। তিনি ইসলাম বিদ্বেষীদের বহুমুখী ষড়যন্ত্রের মোকাবেলায় সিলেট বাসীকে ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন গড়ে তোলার আহবান জানান।
               

 
 
 
 
 
 
 

ছাতক প্রতিনিধিঃ  
ছাতকে বাল্য বিবাহ ও যৌতুক প্রতিরোধ সামাজিক সচেতনতা বিষয়ক ক্যাম্পেইন কর্মসূচির উদ্যোগে বর্ণাঢ্য র‌্যালী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলবার সকালে উপজেলা গর্ভন্যান্স প্রজেক্টের উদ্যোগে বর্ণাঢ্য র‌্যালী ছাতক শহরের প্রধান-প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে আলোচনা সভায় মিলিত হয়। উপজেলা নির্বাহী অফিসার আইনুর আক্তার পান্নার সভাপতিত্বে ও মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মৌলদুর রহমানের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নাছিমা আক্তার খান ছানা। বক্তব্য রাখেন, ছাতক ডিগ্রী কলেজের অধ্যক্ষ মঈন উদ্দিন আহমদ, উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা আব্দুল হাই, সমাজসেবা অফিসার এমরান খান, জেলা ইউনিসেফ’র কর্মকর্তা জিল্লুর রহমান প্রমুখ। সভার শুরুতে পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত করেন, ইসলাম উদ্দিন, গীতা পাঠ করেন, সুধাংশু দাস।
               

 
 
 
 
 
 
 

ছাতক প্রতিনিধিঃ
ছাতকে বিদ্যুৎপৃষ্ট হয়ে মিরু হোসেন (৪৫) নামে এক রং মিস্ত্রীর মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলার নোয়ারাই ইউনিয়নের জুড়াপানি-চান্দের টিলা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। সে গ্রামের মৃত এখলাছুর রহমানের পুত্র। নিহতের স্বজন ইসলাম উদ্দিন সুহেল জানান, মিরু হোসেন এলাকায় রং মিস্ত্রী হিসেবে কাজ করে জীবিকা নির্বাহ করতেন। মঙ্গলবার দুপুরে বাড়ির সামনে বাঁশঝাড়ে বাশঁ কাটার সময় বিদ্যুতের লাইনের সাথে বাশেঁর মাথা লাগলে বিদ্যুৎপৃষ্ট হয়ে মিরু হোসেন মারা যান। নোয়ারাই ইউপি চেয়ারম্যান আফজাল আবেদীন আবুল ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।
               

 
 
 
 
 
 
 

সিলেট, ৩০ সেপ্টেম্বর: জামিন পেয়েছেন সিলেট জেলা ছাত্রদলের নয়া সভাপতি সাঈদ আহমদ। মঙ্গলবার মহানগর দায়রা জজ আদালত তার জামিন মঞ্জুর করেন।
এডভোকেট গোলাম এহিয়া চৌধুরী সুহেল ও এডভোকেট হাবিবুর রহমান হাবিব তার পক্ষে আদালতে জামিনের প্রার্থনা করেন।
গত ১৯ সেপ্টেম্বর নগরীর ইলেকট্রিক সাপ্লাই এলাকা থেকে গ্রেফতার হন সাঈদ আহমদ। জেলা ছাত্রদলের নতুন কমিটি গঠন নিয়ে ছাত্রদলের বিবদমান দুই সংঘর্ষ চলাকালে এয়ারপোর্ট থানা পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে। এরপর পুলিশ তার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে। ১১দিন কারাভোগের পর মঙ্গলবার আদালত তার জামিন মঞ্জুর করেন।           

 
 
 
 
 
 
 

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধিঃ
দক্ষিণ সুনামগঞ্জে একটি বাড়ি একটি খামার প্রকল্পের আওতায় উপজেলার শ্রীনাথপুর, তেহকিয়া, বীরগাঁও খালপাড়, সিদুকাই, শ্রীরামপুর গ্রামের গ্রাম উন্নয়ন সমিতির ১২৩ জন উপকারভোগী পরিবারের মাঝে ৮ লক্ষ ৬ হাজার টাকা ঋণ প্রদান করা হয়েছে।
মঙ্গলবার বিকাল ৩টায় দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলা পরিষদের হল রুমে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মুর্শেদা জামানের সভাপতিত্বে, একটি বাড়ি একটি খামার প্রকল্পের উপজেলা সমন্বয়ক নিতিশ চন্দ্র বর্মনের পরিচালনায় ঋণ বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হাজী আবুল কালাম।
বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মাওঃ তৈয়্যিবুর রহমান, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মোছাঃ রুবিনা বেগম, উপজেলা ক¤িপউটার ফেয়ার ট্রেনিং ইনস্টিটিউটের পরিচালক সাংবাদিক সোহেল তালুকদার।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন একটি বাড়ি একটি খামার প্রকল্পের উপজেলা সুপার ভাইজার সৈয়দ ইমরানুল হক, একটি বাড়ি একটি খামার প্রকল্পের ক¤িপউটার অপারেটার শাহিন মিয়া সহ সমিতির সদস্য, সদস্যাবৃন্দ প্রমূখ।
               

 
 
 
 
 
 
 

সিলেট, ৩০ সেপ্টেম্বর:
ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী আবদুল লতিফ সিদ্দিকী ইসলাম বিদ্বেষী কটুক্তি করার প্রতিবাদে ইসলামী ঐক্যজোট সিলেট জেলা ও মহানগর এর উদ্যোগে মঙ্গলবার বিকেলে নগরীর বন্দরবাজারস্থ কেন্দ্রিয় জামে মসজিদ থেকে এক বিক্ষোভ মিছিল কোর্ট পয়েন্ট এলাকায় গিয়ে সমাবেশে মিলিত হয়। মহানগর ঐক্যজোট সভাপতি মুফতী মাওলানা ফয়জুল হক জালালাবাদীর সভাপতিত্বে ও জেলা সাংগঠনিক সম্পাদক হাফিজ মাওলানা আব্দুল মালিকের পরিচালনায় ইসলামী ঐক্যজোটের কেন্দ্রিয় সিনিয়র সহ-সভাপতি এডভোকেট মাওলানা আব্দুর রকিব, জেলা ভারপ্রাপ্ত সভাপতি হাফিজ মাওলানা নওফল আহমদ, সহ-সভাপতি প্রিন্সিপাল মাওলানা জহুরুল হক, সাধারণ সম্পাদক রফিক বিন সিকন্দর, মাওলানা শেখ সাইফুদ্দিন, মাওলানা জয়নুল আবেদীন, মাওলানা মনজুর আহমদ, মাওলানা আব্দুল ওয়াহিদ, মাওলানা নুরুল হক, মাওলানা আব্দুল ওয়াহিদ প্রমুখ।
সমাবেশে নেতৃবৃন্দ বলেন, ইসলামের অন্যতম স্তম্ভ পবিত্র হজ্ব ও মহানবী (সা:) এর ব্যাপারে কুরুচিপূর্ণ বক্তব্য দিয়ে মন্ত্রী আব্দুল লতিফ সিদ্দিকী ধৃষ্টতা দেখিয়েছেন তা অতীতের সকল ইসলাম বিদ্বেষী কার্যকলাপকে ম্নান করেছে। বাংলাদেশের ইসলাম প্রিয় মুসলমানগণ কোন নাস্তিক ব্যক্তিকে মন্ত্রী পরিষদে মন্ত্রী হিসেবে দেখতে চায় না। নেতৃবৃন্দ অবিলম্বে লতিফ সিদ্দিকীর ইসলাম বিদ্বেষী মন্তব্যের ব্যাপারে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য সরকারের প্রতি জোরদাবী জানান। অন্যথায় ইসলামী ঐক্যজোট সিলেট জেলা ও মহানগর সর্বস্তরের তৌহিদী জনতাকে সাথে নিয়ে কঠোর আন্দোলনের মাধ্যমে সিলেটকে অচল করতে প্রস্তুত রয়েছে।
               

 
 
 
 
 
 
 

সিলেট সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আশফাক আহমদ বলেছেন, পল্লী অঞ্চলের জনগণের মধ্যে প্রায় বিলুপ্ত গ্রামীণ খেলাধুলা পুনরায় জনপ্রিয় করে তোলার লক্ষ্যে ক্রীড়ানুষ্ঠানের মাধ্যমে খেলার প্রসার ঘটানো, কর্মস্পৃহা বৃদ্ধি এবং পারস্পরিক ভ্রাতৃত্ববোধ সৃষ্টি করতে হবে। সোমবার সিলেট সদর উপজেলা প্রশাসন কর্তৃক আয়োজিত গ্রামীণ খেলাধুলা প্রতিযোগিতার সমাপনী ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি উপরোক্ত কথাগুলো বলেন। এর পূর্বে স্থানীয় হযরত শাহ্পরান (রঃ) উচ্চ বিদ্যালয় খেলার মাঠে জাতীয় ক্রীড়া পরিষদ কর্তৃক আয়োজিত গ্রামীণ খেলাধুলার বিভিন্ন ইভেন্টে উপজেলার সকল বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, ক্লাব, সামাজিক সংগঠন, গ্রাম এবং ব্যক্তি পর্যায়ে একক ও দলীয়ভাবে বিভিন্ন ইভেন্টে প্রতিযোগিতার ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত হয়।
 
হযরত শাহ্পরান (রঃ) উচ্চ বিদ্যালয়ের ক্রীড়া শিক্ষক জনাব মোঃ জোয়াদ খানের উপস্থাপনায় এবং সিলেট সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মীর মোহাম্মদ মাহবুবুর রহমান এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মোঃ আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ, সহকারী কমিশনার (ভূমি), সিলেট সদর, সিলেট। অনুষ্ঠানে উপজেলা পর্যায়ের বিভিন্ন বিভাগীয় কর্মকর্তা, ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রধানসহ গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।
               

 
 
 
 
 
 
 

ছাতক প্রতিনিধিঃ    
ছাতকে লাফার্জ সুরমা সিমেন্ট কোম্পানীতে শ্রমিক সরবরাহে ব্যাপক প্রতারনা, জালিয়াতি, টাকা আত্মসাত ও সীমাহীন দূর্নীতির মাধ্যমে কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন এইচআর এন্টারপ্রাইজ। লাফার্জে স্থানীয় ২৪ব্যবসায়ীর অংশীদারিত্বে দুটি সমিতির ব্যবসা পরিচালনার জন্যে মনোনীত এইচআর এন্টারপ্রাইজের পরিচালক সৈয়দ হারুন অর-রশীদ এসব টাকা হাতিয়ে নেন। এব্যাপারে গত ১৫সেপ্টেম্বর এইচআর এন্টারপ্রাইজের পরিচালক সৈয়দ হারুন অর-রশীদকে ১০দিনের মধ্যে আত্মসাতকৃত অর্থ পরিশোধের জন্য লিখিত নোটিশ দিয়েছে তদন্ত কমিটি।  
জানা যায়, লাফার্জ সুরমা সিমেন্ট কোম্পানী অধিকৃত ক্ষতিগ্রস্থ ভূমি মালিক সমবায় সমিতি ও টেংগারগাঁও ভিটাবাড়ি ক্ষতিগ্রস্থ বহুমুখি সমবায় সমিতি লাফার্জে দৈনিক শ্রমিক সরবরাহ ব্যবসা পরিচালনার জন্যে ২৪ব্যবসায়ী অংশীদারের আয়-ব্যয় হিসাবের মাধ্যমে লভ্যাংশ ও সমিতির শতকরা ২ ভাগ প্রাপ্তি সাপেক্ষে মনোনীত এইচআর এন্টারপ্রাইজকে ব্যবসা পরিচালনার দায়িত্ব দেয়া হয়। ২০০৭সাল থেকে তিনি এ ব্যবসা পরিচালনা করে আসছেন। সম্প্রতি তার বিরুদ্ধে দূর্নীতি ও আত্মসাতের অভিযোগ উঠলে ২৩ব্যবসায়ী তাদের পাওনা পরিশোধে গঠিত তদন্ত কমিটির মাধ্যমে ১০দিনের আল্টিমেটাম দেন। লাফার্জে শ্রমিক সরবরাহে ৭০লক্ষাধিক ও ডব্লিউ.টি.পি ব্যবসায় ১২লক্ষাধিক টাকা এইচআর এন্টারপ্রাইজ হাতিয়ে নেয়। এক্ষেত্রে ২৪অংশীদারের আয়-ব্যয় হিসাব ব্যাংকের মাধ্যমে লেনদেন করার কথা থাকলেও পরিচালক সৈয়দ হারুন অর-রশীদ প্রতি দু’তিন মাস পর-পর ২৩অংশীদারকে ৫শ’ থেকে ৮শ’ টাকা দিয়ে সমুদয় টাকা আত্মসাত করেছেন। টাকা আত্মসাত বিষয়ে গঠিত তদন্ত কমিটির সদস্য ফয়জুর রহমান, আব্দুল আলীম চৌধুরী, ময়নুর মিয়া চৌধুরী ও আসাদ আলী স্বাক্ষরিত নোটিশে আগামী ২৫সেপ্টেম্বরের মধ্যে এইচআর এন্টারপ্রাইজের পরিচালককে সমিতির শতকরা ২ভাগ লভ্যাংশ, ২৪অংশীদারের যাবতীয় পাওনা ও প্রয়োজনীয় কাগজপত্র সমিতি কার্যালয়ে দাখিল করার জন্য তাগিদ দেন। এর অনুলিপি উপজেলা সমবায় কর্মকর্তা, লাফার্জের কমিউনিটি রিলেশন ম্যানেজার ও পারচেইজ এন্ড ওয়্যার হাউজে প্রদান করা হয়। এদিকে দূর্নীতি ও টাকা আত্মসাতের ঘটনা ধামাচাঁপা দিতে এইচআর এন্টারপ্রাইজ জোর অপতৎপরতা অব্যাহত রেখেছে। এর আগে লাফার্জে ২৩পরিবহন শ্রমিক নিয়োগের নামে প্রতারনা ও অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে এইচআর এন্টারপ্রাইজের পরিচালক সৈয়দ হারুন অর-রশীদের বিরুদ্ধে চট্টগ্রাম ২য় শ্রম আদালতে বিচারাধিন একটি মামলায় আসামী করার জন্যে মহামান্য হাইকোর্ট নির্দেশ দিয়েছেন।
               

 
 
 
 
 
 
 

শাল্লা প্রতিনিধিঃ   
সুনামগঞ্জের শাল্লা উপজেলার আনন্দপুর গ্রাম থেকে ৫০ লিটার দেশীয় মদ উদ্ধার করেছে শাল্লা থানার পুলিশ। গত সোমবার রাত ৮ টায় উপজেলার হবিবপুর ইউনিয়নের আনন্দপুর গ্রামে অভিযান চালিয়ে জীবনধ্বংশকারী এই মাদক উদ্ধার করা হয়। জানা যায়, এস আই আবু জাফরের নেতৃত্বে উপজেলার আনন্দপুর গ্রামের মৃতঃ জামীনি রায়ের ছেলে রন রায়(৪০)এর বাড়িতে ঘরের ভেতরে মাটি কুঁড়ে ৫০ লিটার মদ উদ্ধার করেন শাল্লা থানার পুলিশ। এ বিষয়ে এস আই আবু জাফর জানিয়েছেন গত রাত ৫০ লিটার মদ উদ্ধার করার পর থানায় মামলা হয়েছে। মামলা নং ৮ এবং ১৯৯০ সনের মাদক দ্রব্য আইন নিয়ন্ত্রন ২২ এর (গ) দ্বারা। তিনি আরও বলেন, অতি শীঘ্রই মাদক ব্যবসার সাথে জড়িতদের গ্রেপ্তার করা হবে বলে স্থানীয় সাংবাদিকদেরকে জানান।
               

 
 
 
 
 
 
 

সুধাংশু শেখর হালদার, মৌলভীবাজারঃ
মৌলভীবাজারের শমসেরগঞ্জের কাগাবলা ইউনিয়নের বিন্নিগাঁও এলাকায় মৌলভীবাজার মডেল থানা পুলিশের বিশেষ অভিযানে  ১৬ সেপ্টেম্বর ভোর রাতে ৫১ বোতল ফেন্সিডিল সহ বিন্নিগাঁও নিবাসী মৃত মোঃ মখলিছ মিয়ার পুত্র মোঃ খালেদ মিয়া (৩৫) কে আটক করা হয়। মৌলভীবাজার মডেল থানায় ১৬ সেপ্টেম্বর দুপুরে এক প্রেস ব্রিফিং কালে জানাযায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মডেল থানার এসআই আমিরুল ইসলাম, এসআই প্রদীপ, এসআই ফরীদ, এ এস আই আরিফ এর নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল কাগাবলা ইউনিয়নের বিন্নিগাাঁও এলাকায় বিশেষ অভিযান চালিয়ে ফেন্সিডিল ব্যবসায়ী মোঃ খালেদকে তার বসত ঘরের ওয়ারড্রপে বালিশের নীচে ও সকেচে রক্ষিত ৫১ বোতল ফেন্সিডিল  সহ আটক করা হয়। আটককৃত খালেদ জানায়, বিগত এক বৎসর যাবৎ সে এ ব্যবসা করে আসছে। সে ফিন্সিডিলগুলো কমলগঞ্জের চাতলা বর্ডার সংলগ্ন সিন্দরুখান থেকে সংগ্রহ করে আসছে। ফেন্সিডিল ভারত থেকে সিন্দুখান হয়ে মৌলভীবাজারের বিভিন্ন এলাকায় পৌছে বলেও সে জানায়। এদিকে প্রেস ব্রিফিং কালে সহকারী পুলিশ সুপার সিরাজুল ইসলাম ও মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ আব্দুছ ছালেক জানান- আইনশৃঙ্খলা রক্ষার স্বার্থে পুলিশের বিশিষ অভিযান অব্যাহত থাকবে।

 
 
 
জনমত জরিপ

তিস্তা অভিমুখে লংমার্চ করে বিএনপি কি রাজনৈতিক ভাবে লাভমান হয়েছে?

 
হ্যাঁ না
 
 

ফলাফল দেখুন

 
 

ঢাকা, ৩০ সেপ্টেম্বর: ইসলাম ধর্ম সম্পর্কে অাপত্তিকর বক্তব্য দেয়ায় ডাক ও টেলিযোগাযোগ এবং তথ্যপ্রযুক্তি বিষয়ক মন্ত্রী আবদুল লতিফ সিদ্দিকীকে মন্ত্রিসভা থেকে অব্যাহতির সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।
লন্ডনে অবস্থানরত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা লতিফ সিদ্দিকীকে মন্ত্রিসভা থেকে বাদ দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।
রবিবার বিকেলে নিউ ইয়র্কের জ্যাকসন হাইটসের একটি হোটেলে নিউ ইয়র্কস্থ টাঙ্গাইলবাসীদের সঙ্গে এক মতবিনিময়কালে আব্দুল লতিফ সিদ্দিকী পবিত্র হজ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘আমি কিন্তু হজ আর তাবলিগ জামাতের ঘোরতর বিরোধী। আমি জামায়াতে ইসলামীরও বিরোধী। তবে তার চেয়েও হজ ও তাবলিগ জামাতের বেশি বিরোধী।’
বিরোধিতার কারণ ব্যাখ্যায় মন্ত্রী বলেন, ‘এই হজে যে কত ম্যানপাওয়ার নষ্ট হয়। হজের জন্য ২০ লাখ লোক আজ সৌদি আরবে গিয়েছে। এদের কোনো কাম নাই। এদের কোনো প্রডাকশন নাই। শুধু রিডাকশন দিচ্ছে। শুধু খাচ্ছে আর দেশের টাকা দিয়ে আসছে।’
তিনি বলেন, ‘এভারেজে যদি বাংলাদেশ থেকে এক লাখ লোক হজে যায় প্রত্যেকের পাঁচ লাখ টাকা করে ৫০০ কোটি টাকা খরচ হয়।’
অনুষ্ঠানে হজের উৎপত্তি সংক্রান্ত বর্ণনায় আরো আপত্তিকর কথা বলেছেন আব্দুল লতিফ সিদ্দিকী। তিনি বলেন, ‘আব্দুল্লাহর পুত্র মোহাম্মদ (নবী হযরত মুহাম্মদ সাল্লাহু আলাইহিস সালাম) চিন্তা করল এ জাজিরাতুল আরবের লোকেরা কিভাবে চলবে। তারাতো ছিল ডাকাত। তখন একটা ব্যবস্থা করলো যে, আমার অনুসারিরা প্রতিবছর একবার একসঙ্গে মিলিত হবে। এর মধ্য দিয়ে একটা আয়-ইনকামের ব্যবস্থা হবে।’
মুসলিম বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম জামাত তাবলিগ জামাতের সমালোচনা করে আব্দুল লতিফ সিদ্দিকী বলেন, ‘তাবলিগ জামাত প্রতি বছর ২০ লাখ লোকের জমায়েত করে। নিজেদের তো কোনো কাজ নেই। সারা দেশের গাড়িঘোড়া তারা বন্ধ করে দেয়।’
তিনি তার বক্তৃতায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছেলে সজীব ওয়াজেদ জয়ের বিষয়ে বিরূপ মন্তব্য করেন। প্রবাসী বাংলাদেশিদের উদ্দেশ্যে মন্ত্রী বলেন, ‘কথায় কথায় আপনারা জয়কে টানেন কেন। জয় ভাই, সে কে? জয় বাংলাদেশ সরকারের কেউ নয়। তিনি কোনো সিদ্ধান্ত নেয়ারও কেউ নন। শুধু পরামর্শ দিতে পারে, কোনো কিছু বাস্তবায়নের ক্ষমতা তার নেই।’
টক শোতে যারা অংশ নেন তাদের ‘চুতমারানি ভাই’ আখ্যা দিয়ে মন্ত্রী বলেন, ‘যারা টক শোতে যায়, তারা টক-ম্যান। নিজেদের কোনো কাজ না থাকায় ক্যামেরার সামনে যেয়ে তারা বিড়বিড় করে। চু... ভাইদের আর কোনো কাজ নেই।’
অনুষ্ঠানে বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দিতে গিয়ে লতিফ সিদ্দিকী বারবার উত্তেজিত হয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে অসৌজন্যমূলক আচরণ করেন। এক সাংবাদিককে ধমক দিয়ে তিনি বলেন, ‘আমি কি তোমার মতো কথা বলব। আমি আমার মতো কথা বলব। তুমি এখানে আসলা কেন, তোমাকে কে বলেছে আসতে?’
প্রবাসীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, ‘আপনারা বিদেশে এসেছেন কামলা দিতে এবং সব সময় কামলাই দিবেন।’
প্রবাস থেকে প্রকাশিত পত্রপত্রিকাগুলোকে লতিফ সিদ্দিকী টয়লেট পেপার আখ্যায়িত করে টিভির টকশোতে অংশগ্রহণকারীদের ‘টক মারানি’ বলে গাল দেন। তিনি বলেন, ‘টকমারানিদের সঙ্গে চুতমারানিদের কোনো পার্থক্য নেই।’
এ সময় মন্ত্রী জানান, ‘আমি যাদের কাছ থেকে ৪ লাখ টাকা চাঁদা চেয়ে ১ লাখ পেয়েছি তাদের কোনো তদবির এখন রক্ষা করি না।’
লতিফ সিদ্দিকী সম্ভবত বাংলাদেশের প্রথম কোনো মন্ত্রী যিনি পবিত্র ইসলাম সম্পর্কে এ ধরনের ধৃষ্টতাপূর্ণ মন্তব্য করার দুঃসাহস দেখালেন।
তার বক্তব্যে ব্যাপক প্রতিক্রিয়া হয় দেশে এবং বিদেশে। ধর্মীয় সংগঠনগুলো তাকে কাফের এবং মুরতাদ বলে ঘোষণা করে। বিএনপিসহ রাজনৈতিক দলগুলোর ক্ষোভে ফেটে পড়ে। ইসলামের অবিচ্ছেদ্য অঙ্গ হজ সম্পর্কে বিরূপ মন্তব্যের পর স্থানীয় প্রবাসীদের মধ্যে কড়া প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়। সংবাদটি দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে। ক্ষুব্ধ প্রবাসীরা মন্ত্রীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানান।
অন্যদিকে, যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের উপস্থিতিতেই সজীব ওয়াজেদ জয়ের বিরুদ্ধে মন্ত্রীর এ ধরনের বক্তব্যে বিস্মিত দলের কর্মী ও সমর্থকরা। সভাস্থলেই অনেকেই ক্ষোভ প্রকাশ করলে এক পর্যায়ে মন্ত্রী আব্দুল লতিফ সিদ্দিকী দ্রুত ঘটনাস্থল থেকে চলে যান।
প্রসঙ্গত, প্রধানমন্ত্রীর সফরসঙ্গী হিসেবে নিউ ইয়র্ক সফর করছেন ডাক, তার ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী আব্দুল লতিফ সিদ্দিকী।               

 
 
 
 

সিলেট, ৩০ সেপ্টেম্বর: প্রশাসনের বিরুদ্ধে অসহযোগিতার অভিযোগ তুলেছেন সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী। প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা তাকে রহস্যজনক কারণে এড়িয়ে চলছেন বলেও অভিযোগ করেছেন তিনি। মঙ্গলবার বিকেলে সিটি করপোরেশন মিলনায়তনে সংবাদ সম্মেলন করে মেয়র এ অভিযোগ করেন।
মেয়র আরিফ বলেন- নির্বাচনী ওয়াদা অনুযায়ী তিনি মেয়রের দায়িত্ব নিয়েই নগরীর ফুটপাত থেকে হকার উচ্ছেদ করেছেন। যানজট নিরসনে রিকশার জন্য আলাদা লেন করে দিয়েছেন। কিন্তু কিছু দিন পরপর হকাররা ফুটপাত দখল করে বসার চেষ্টা করে আসছে। ফুটপাত থেকে হকার উচ্ছেদে পুলিশের সহযোগিতা চাওয়া হলেও তারা তা করছেন না। তাই বাধ্য হয়ে তিনি ও তার কাউন্সিলররা হকার উচ্ছেদে মাঠে নামতে হচ্ছে।
মেয়র আরও অভিযোগ করেন- প্রশাসনের কিছু উর্ধ্বতন কর্মকর্তা সিটি করপোরেশন ও করপোরেশনের জনপ্রতিনিধিদের এড়িয়ে চলার চেষ্টা করছেন। তাদের অসহযোগিতার কারণে নগরীর উন্নয়নে সমন্বিত কোন উদ্যোগ নেয়া সম্ভব হচ্ছে না। মেয়র বলেন- সিটি করপোরেশনে কোন সমন্বয় সভা আহ্বান করলে প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা না এসে তাদের অধিনস্থদের পাঠান। ফলে সভায় বসে কোন সিদ্ধান্ত নেয়া সম্ভব হয় না।
সরকারী বিভিন্ন অনুষ্ঠানে উপেক্ষা করার অভিযোগ তুলে মেয়র আরিফ বলেন- গত বৃক্ষমেলায় সিটি করপোরেশন সহযোগী প্রতিষ্ঠান ছিল। কিন্তু অতিথি হিসেবে তাকে মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে রাখা হয়নি। একইভাবে বিভিন্ন সরকারী অনুষ্ঠানে তাকে এড়িয়ে চলার চেষ্টা করছেন প্রশাসনের কিছু উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।
সিলেটের স্থানীয় সাংসদ ও অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত সিলেটের উন্নয়নের ব্যাপারে আন্তরিক উল্লেখ করে মেয়র বলেন- অর্থমন্ত্রী সিলেট থাকলে প্রশাসনের কাছ থেকে ঠিকই সহযোগিতা পাওয়া যায়। কিন্তু অর্থমন্ত্রী সিলেট থেকে চলে গেলে রহস্যজনক কারণে পাল্টে যান কর্মকর্তারা। প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের এমন আচরণ উন্নয়নের অন্তরায় বলেও দাবি করেন মেয়র। সংবাদ সম্মেলনে সিটি করপোরেশনের ১৯ জন কাউন্সিলর উপস্থিত ছিলেন।
           

 
 
 

সিলেট, ৩০ সেপ্টেম্বর:
ইসলাম ধর্মের মূলনীতি ও তাবলীগ জামাত নিয়ে ক্ষমতাসীন সরকারের ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রীর কুরুচিপূর্ণ বক্ত্যব্যের প্রতিবাদ ও মন্ত্রীপদ থেকে বরখাস্তের দাবীতে মঙ্গলবার বাদ আছর সিলেট নগরীতে সচেতন মুসলিম সমাজের মিছিল পরবর্তী সভায় বক্তারা বলেন, অবিলম্বে আব্দুল লতিফ সিদ্দিকীকে মন্ত্রীপদ থেকে বরখাস্ত করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিতে হবে। সচেতন মুসলিম সমাজের সভাপতি আবদুল মুহিত খান মুরাদের সভাপতিত্বে সাধারণ সম্পাদক আতিকুর রহমান নগরীর পরিচালনায় সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সংগঠনের উপদেষ্টা ও বিশিষ্ট রাজনীতিবিদ আবদুল মালিক চৌধুরী, বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বিশিষ্ট আলেমেদ্বীন ও সাহিত্যিক মাওলানা আসরারুল হক, সোনারপাড়া বায়তুন নূর জামে মসজিদের খতিব মাওলানা নূর আহমদ কাসেমি, মাদরাসাতুল মদীনার প্রিন্সিপাল মাওলানা আবুল বাশার, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মাওলানা লুৎফুর রহমান,
সভায় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ও বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সিনিয়র সভাপতি মাওলানা সালেহ আহমদ শাহবাগী, সহ সভাপতি আবু সুফিয়ান, সহ সভাপতি নুরুল ইসলাম জুয়েল, এম. মাশহুদুল আম্বিয়া মহসিন, যুগ্ম সম্পাদক হাফিয এম. এম. খান ফাহিম, শায়খুল ইসলাম ইন্টারন্যাশনাল জামেয়ার শিক্ষক মাওলানা ফয়েজ উদ্দিন, সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা লুকমান হাকিম, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক হাফিয মনছুর বিন সালেহ, প্রচার সম্পাদক আব্দুল¬াহ সাহিত্য সম্পাদক আব্দুর রহমান নাদিম, ফুযায়েল আহমদ, মাওলানা কায়সান মাহমুদ আকবরী, আব্দুল করিম দিলদার প্রমুখ।
               

 
 
 

সিলেট, ৩০ সেপ্টেম্বর: হযরত মুহাম্মদ (সা.), হজ, তাবলীগ জামাতকে নিয়ে আপত্তিকর মন্তব্য করায় ডাক টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী আব্দুল লতিফ সিদ্দিকীর বিরুদ্ধে সারা বিশ্বে সমালোচনার ঝড় উঠেছে।
ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হানার অভিযোগে মঙ্গলবার সিলেটের একটি আদালতে লতিফ সিদ্দিকীর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। এডভোকেট মাসুদুর রহমান খান মুন্না নামে এক আইনজীবী এ মামলা দায়ের করেন।           

 
 
 

সিলেট, ৩০ সেপ্টেম্বর:                              
সিলেট মহানগর জামায়াত নেতৃবৃন্দ বলেছেন, আওয়ামী অবৈধ মন্ত্রী কর্তৃক বার বার ইসলাম ধর্মের অবমাননা ধর্মপ্রাণ মুসলমানের ধৈর্য্যরে সীমা ছাড়িয়ে গেছে। অবৈধ সরকারের ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী লতিফ সিদ্দিকী ইসলাম ধর্মের পাঁচটি মূল স্তম্ভের মধ্যে গুরুত্বপূর্ণ পবিত্র হজ্ব নিয়ে যে মন্তব্য করেছেন তা কোন সুস্থ মস্তিষ্কের মানুষের দ্বারা সম্ভব নয়। মানবতার মুক্তি দূত প্রিয় নবী (সা:) অবমাননা করে মন্ত্রী যে কান্ডজ্ঞানহীন বক্তব্য প্রদান করেছেন তা দেশের শতকরা ৯০ ভাগ মুসলমানের বুকে ছুরিকাঘাতের শামিল। নাস্তিক মুরতাদ ঐ মন্ত্রীকে সরকারের মন্ত্রী সভা থেকে বের করে দেয়ার পাশাপাশি প্রকাশ্যে ক্ষমা চাইতে হবে। না হয় জাতির নিকট প্রতীয়মান হবে যে, ঐ মন্ত্রীর বক্তব্য অবৈধ সরকারের ইসলাম বিদ্বেষী মনোভাবের বহিঃপ্রকাশ।
মঙ্গলবার এক প্রতিবাদ বার্তায় সিলেট মহানগর জামায়াতের আমীর এডভোকেট এহসানুল মাহবুব জুবায়ের ও ভারপ্রাপ্ত সেক্রেটারী মাওলানা সোহেল আহমদ উপরোক্ত কথা বলেন।  

               

 
 
 

সৈয়দ শাহ সেলিম আহমেদ- ইয়র্ক হল থেকে:
সোমবার লন্ডনের ইয়র্কহলে বিএনপি আয়োজিত আলোচনা সভায় তারেক রহমান বলেন, শেখ হাসিনার সরকার অবৈধ, অবৈধ সরকারের অবৈধ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। জিয়াউর রহমানই বাংলাদেশের প্রথম রাষ্ট্রপতি।
তিনি আরো বলেন, আওয়ামীলীগ হত্যার রাজনীতি চালু করেছে। বাংলাদেশের রাজনিতিতে আওয়ামীলীগ একটি অশুভ শক্তি। শেখ হাসিনার হাতে বাংলাদেশের রাজনীতি, গণতন্ত্র নিরাপদ নয়।অবৈধ সরকারের আর বেশী সময় নাই।
শেখ মুজিবকে জাতির জনক না জাতির হত্যাকারী, বঙ্গবন্ধু না পাকবন্ধু বলা সঙ্গত। আওয়ামীলীগের ৭৫ ই একমাত্র সম্বল ছাড়া আর কিছুই নেই।
আওয়ামীলীগের আন্দোলন মানেই লগি বৈঠার আন্দোলন বলেও তিনি মন্তব্য করেন।শেখ মুজিব একজন পাকিস্তানের নাগরিক, পাকিস্তানের পাসপোর্টধারী শেখ মুজিব অবৈধ প্রধানমন্ত্রী। আওয়ামীলীগ শেখ মুজিবের নামে বছরের পর বছর মিথ্যা ইতিহাস রচনা করেছে।  

আজকের অনুষ্ঠান মূলতঃ যুক্তরাষ্ট্রের শিকাগো সিটিতে একটি সড়কের নামকরণ জিয়াউর রহমান ওয়ে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের সেই রেপ্লিকা তারেক রহমানের হাতে হস্তান্তর উপলক্ষে। আর সেই রেপ্লিকা হস্তান্তর করেন
এ সময় তারেক রহমান বলেন, এ কে খন্দকার একজন মুক্তিযুদ্ধের উপ-অধিনায়ক। তিনি লিখেছেন ৭ই মার্চ শেখ মুজিব জয় পাকিস্তান দিয়ে বক্তব্য শেষ করেন। এটা আমার কথা নয়। এ কে খন্দকার আওয়ামীলীগের মন্ত্রী এবং তাদেরই লোক। সত্য বলার কারণে আজকে সে তাদের কাছে রাজাকার। শেখ মুজিব বাংলাদেশের স্বাধীনতা চায়নি এটাই কি তার প্রমাণ নয়? বঙ্গবন্ধু নিয়ে একই সময় শফিউল্লাহ, মজাহিদুল ইসলাম সেলিম, মতিয়া চৌধুরীর বক্তব্যও তিনি পড়ে শুনান।

তারেক রহমান বলেন, মার্কিন সরকার হাসিনার অবৈধ সরকারের রিকুয়েস্ট রাখেনি। তারা শিকাগোতে জিয়াউর রহমান ওয়ে নামকরণ করেন, সেজন্যে তিনি তাদের ধন্যবাদ দেন।

তিনি বলেন, জিয়াউর রহমানের স্বাধীনতার ঘোষণার ফলেই মুক্তিযুদ্ধ সারা বিশ্বের কাছে নতুন এক মাত্রা লাভ করে, মুক্তিযোদ্ধাদের মধ্যে প্রাণের সঞ্চার হয়। শহীদ জিয়া মুক্তিযুদ্ধ সংগঠিত করেছেন, স্বাধীনতার ঘোষণা দিয়েছেন।

তিনি বলেন ইনুকে রিমান্ডে নিলেই খালেদ মোশাররফ হত্যার রহস্য বেরিয়ে আসবে।

তিনি বলেন, শেখ হাসিনার অবৈধ সরকার গুম খুন আর লুটের সাথে জড়িত।

যুক্তরাজ্য বিএনপির সভাপতি শায়েস্তা চৌধুরী কুদ্দুছের সভাপতিত্বে ও সেক্রেটারি কয়সর এম আহমেদের পরিচালনায় সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন যুক্তরাজ্য বিএনপির সাবেক সভাপতি এম এ মালেক, আন্তর্জাতিক সম্পাদক মাহিদুর রহমান, চেয়ার পার্সনের পররাষ্ট্রবিষয়ক উপদেষ্ঠা পরিষদের সদস্য মুশফিকুল ফজল আনসারি, তারেক রহমানের বিশেষ রাজনৈতিক উপদেষ্ঠা হুমায়ূন কবির, কেন্দ্রীয় নেতা ব্যারিস্টার আজম, সুপ্রীম কোর্ট জাতীয়তাবাদী আইনজীবী পরিষদের জয়নাল আবেদিন,কেন্দ্রীয় যুবদল নেতা রুহুল কুদ্দুস দুলু, আব্দুল হামিদ চৌধুরী, ব্যারিস্টার এম এ সালাম, আবুল কালাম আজাদ প্রমুখ।

উল্লেখ্য অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যের সুবিধার্থে মঞ্চে উপবিষ্ট থাকা বিএনপি নেতা মিয়া মনিরুল আলম তিনি বক্তব্য না দিয়ে সেই সময়টুকু তারেক রহমানের জন্য বরাদ্ধ করেন, একই পদ্ধতি অনুসরন করেন এম এ মজিদ। অনুষ্ঠানে কোরআন তেলাওয়াত করেন মাওলানা শামীম।


               

 
 
 

নিউজডেস্ক: ডাক-টেলিযোগাযোগ ও তথ্য-প্রযুক্তি মন্ত্রী আবদুল লতিফ সিদ্দিকী হজ-হাজী ও তাবলিগ জামাত নিয়ে অশালীন ও আপত্তিকর মন্তব্য করায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে জামায়াতে ইসলামী।
সোমবার এক বিবৃতিতে জামায়াতের নায়েবে আমির ও সাবেক এমপি অধ্যাপক মুজিবুর রহমান বলেন, ‘পবিত্র হজ্জ এবং বিশ্বনবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) সম্পর্কে আপত্তিকর ও অন্যায় মন্তব্য করে তিনি (আব্দুল লতিফ সিদ্দিকী) বিশ্বের সকল মুসলমানের ঈমানের উপর আঘাত দিয়েছেন। ইসলামের অন্যতম স্তম্ভ পবিত্র হজ্জ একটি ফরজ ইবাদত। এই সম্পর্কে কটূক্তি করার এখতিয়ার কারো নেই। কোনো মুসলমান পবিত্র হজের বিরোধিতা করতে পারে না। কোনো মুসলমান হজের বিরোধিতা করলে তার ঈমান থাকে না।

হযরত মুহাম্মদ (সা.) শেষ নবী। কোনো মুসলমান তুচ্ছ তাচ্ছিল্যের সঙ্গে মহানবী (সা.) এর নাম উচ্চারণ করতে পারে না। তার নাম শুদ্ধভাবে উচ্চারণ করে দরূদ পাঠ করা সকল মুসলমানের অবশ্য কর্তব্য। বিশ্ব নবী হযরত মুহাম্মদ (সা.)-কে ভালোবাস, শ্রদ্ধা করা প্রত্যেক মুসলমানের ঈমানের অঙ্গ।’

তিনি বলেন, ‘মন্ত্রী আব্দুল সিদ্দিকীর বক্তব্যে বাংলাদেশের সকল মুসলামান ক্ষুব্ধ ও মর্মাহত। এ বক্তব্য রেখে দেশে তিনি অস্বস্তিকর পরিস্থিতি সৃষ্টি করেছেন। আমি এ মুহূর্তে তার এ বক্তব্য প্রত্যাহার করে দেশের ধর্মপ্রাণ মুসলমানদের নিকট ক্ষমা প্রার্থনার আহবান জানাচ্ছি। তার এ অন্যায় ও আপত্তিকর মন্তব্যে গোটা মুসলিম উম্মাহ আহতবোধ করছে। কোনো মুসলমান এ ধরনের অন্যায় মন্তব্য করতে পারে না।’               

 
 
 

সিলেট, ২৯ সেপ্টেম্বর:
বিশ্বনাথে বিশ্বনাথে এক গৃহবধু খুন হয়েছেন।নিহতের নাম শিল্পী বেগম (২৪)। সে রামপাশা ইউনিয়নের নওধার গ্রামের সুন্দর আলীর মেয়ে ও লুৎফুর রহমানের স্ত্রী। রবিবার দিবাগত রাতে উপজেলার বৈরাগীবাজারস্থ দক্ষিণ কাটলীপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। সোমবার বিকেলে থানা পুলিশ কাটলিপাড়া গ্রামের তৈয়ব আলীর বাড়ির পুকুরের পূর্ব পাড়ের ঝোপ-ঝাড় সমেত নির্জন বাগান থেকে নিহতের লাশ উদ্ধার করে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করেছ
এদিকে, হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে রহমাননগর গ্রামের মৃত মামুন আলীর ছেলে সমুজ আলী (৫০) কে তাৎক্ষনিকভাবে আটক করেছে থানা পুলিশ।

জানা গেছে, রবিবার রাতে ঘর থেকে নিহত শিল্পী কে ডেকে নিয়ে যান সমুজ আলী। রাতে অনেক খোঁজা খুঁজি করে শিল্পী কে পাওয়া যায়নি। সোমবার দুপুরে দক্ষিণ কাটলীপাড়া গ্রামের তৈয়ব আলীর বাড়ির জঙ্গলে শিল্পীর লাশ দেখতে পান স্থানীয়রা। এরপর থানা পুলিশকে খবর দিলে বিকেল ৩টায় পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে মর্গে প্রেরণ করে। নিহত শিল্পী বেগমকে সমুজ আলীই খুন করেছেন এমনটাই দাবি করছেন নিহতের মা জাহানারা বেগম।

এব্যাপারে থানার অফিসার ইন-চার্জ মো. রফিকুল হোসেন বলেন, শিল্পী কে শ্বাসরুদ্ধ পূর্বক হত্যা করা হতে পারে বলে ধারনা করা হচ্ছে। তিনি বলেন, নিহতের পরিবারের অভিযোগের প্রেক্ষিতে তাৎক্ষনিকভাবে অভিযুক্ত ব্যক্তিকে আটক করা হয়েছে।

 
 
 

ঢাকা, ২৯ সেপ্টেম্বর : পবিত্র হজ ও মহানবী হযরত মোহাম্মদ (সা:) কে কটাক্ষ করে দেয়া ডাক টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী আবদুল লতিফ সিদ্দিকীর বক্তব্যের তীব্র প্রতিবাদ ও হুঁশিয়ারি জানিয়ে হেফাজতে ইসলাম নেতৃবৃন্দ বলেছেন, সরকার যথাযথ শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ না করলে আবদুল লতিফ সিদ্দিকীকে সালমান রুশদী ও তসলিমা নাসরিনের পরিণতি ভোগ করতে হবে।

সোমবার সংগঠনটির পক্ষ থেকে গণমাধ্যমে পাঠানো এক যৌথ বিবৃতিতে এ প্রতিবাদ জানানো হয়।

বিবৃতিতে ৪৮ ঘন্টার মধ্যে আবদুল লতিফ সিদ্দিকীর মন্ত্রীসভা থেকে বহিষ্কার দাবী করে বলা হয়, বাংলাদেশের মাটিতে তাকে পা রাখতে দেয়া হবে না। সংখ্যারিষ্ঠ নবীপ্রেমিক জনতা সরকারের হঠকারিতারও উপযুক্ত জবাব দেবে।

বিবৃতিতে বলা হয়, বিশ্বনবী মুহাম্মাদুর রাসূলুল্লাহ পৃথিবীর দেড়শ’ কোটি মুসলমানের কাছে নিজের জীবনের চাইতে প্রিয় ব্যক্তিত্ব। তিনি মানবতার মুক্তির দূত এবং মহান আল্লাহর প্রেরিত সর্বশ্রেষ্ঠ ও সর্বশেষ নবী। অন্যদিকে হজ মুসলমানদের প্রধান পাঁচটি মৌলিক ধর্মীয় স্তম্ভের অন্যতম। পবিত্র হজ ও হাজীদের কটাক্ষ করা মহানবী (সা.) কে বিদ্রুপাত্মক ভাষায় তাচ্ছিল্য করার স্পর্ধা দেখিয়ে বর্তমান সরকারের মন্ত্রী আবদুল লতিফ সিদ্দিকী নিউ ইয়র্কে যে কুরুচিপূর্ণ বক্তব্য রেখেছেন তা কেবল একজন উগ্র নাস্তিকের পক্ষেই সম্ভব। আমরা অবিলম্বে তাকে মন্ত্রিসভা থেকে বহিষ্কার এবং ধর্মীয় অনুভুতিতে আঘাত দেয়ার অভিযোগে গ্রেফতারপূর্বক সর্বোচ্চ শাস্তি প্রদানের দাবি জানাচ্ছি।

বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ বলেন, যদি সরকার তার বিরুদ্ধে মন্ত্রিসভা থেকে বহিষ্কারসহ দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা নিতে ব্যর্থ হয় তবে দেশের লক্ষ-কোটি নবীপ্রেমিক জনতা আবারও ২০১৩ সালের মতো সারাদেশে নাস্তিক-বিরোধী আন্দোলনে নামতে বাধ্য হবে। এবং প্রমাণিত হবে আ’লীগ নাস্তিক-মুরতাদদের দল।

এতে বলা হয়, আমরা ক্ষুব্ধ, বিস্মিত, স্তম্ভিত এবং লজ্জিত যে, প্রধানমন্ত্রীর সফরসঙ্গী হিসেবে রাষ্ট্রীয় খরচে বিদেশে গিয়ে আবদুল লতিফ সিদ্দিকী মহানবীর ব্যাপারে জঘন্য কটূক্তি, পবিত্র হজ ও হাজীদের ব্যাপারে চরম আপত্তিকর মন্তব্য এবং তাবলীগ জামাআতের ব্যাপারে কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য করতে সাহস পেলেন।

বিবৃতিদাতারা হলেন, হেফাজতে ইসলামের সিনিয়র নায়েবে আমীর আল্লামা মুহিব্বুল্লাহ বাবুনগরী, নায়েবে আমীর মাওলানা নূর হোসাইন কাসেমী, মাওলানা শামসুল আলম, মাওলানা শাহ্‌ আহমদুল্লাহ আশরাফ, মাওলানা আবদুল মালেক হালিম, মাওলানা তাফাজ্জল হোসাইন হবিগঞ্জ, মুফতি মোজাফফর আহমদ, মাওলানা আবদুল হামিদ পীর সাহেব মধুরপুর, মহাসচিব মাওলানা জুনাইদ বাবুনগরী।               

 
 
 

নিউজডেস্ক: ইসলামের অন্যতম স্তম্ভ হজ সম্পর্কে কটূক্তি করেছেন আলোচিত-সমালোচিত আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য এবং ডাক টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী আব্দুল লতিফ সিদ্দিকী। তিনি তাবলিগ জামাত সম্পর্কেও বিরূপ মন্তব্য করেছেন। আর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার একমাত্র ছেলে ও তার প্রযুক্তিবিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়কে এক হাত নিয়েছেন।ছাড়েনি সাংবাদিকদেরও। টকশোর অংশগ্রহণকারী থেকে এই পেশার লোকদের সরকারের এই প্রবীণ মন্ত্রী চুতমারানিসহ অশ্রাব্য সব গালাগাল করেছেন।
রবিবার বিকেলে নিউ ইয়র্কের জ্যাকসন হাইটসের একটি হোটেলে নিউ ইয়র্কস্থ টাঙ্গাইলবাসীদের সঙ্গে এক মতবিনিময়কালে আব্দুল লতিফ সিদ্দিকী এসব কথা বলেন। পবিত্র হজ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘আমি কিন্তু হজ আর তাবলিগ জামাতের ঘোরতর বিরোধী। আমি জামায়াতে ইসলামীরও বিরোধী। তবে তার চেয়েও হজ ও তাবলিগ জামাতের বেশি বিরোধী।’
বিরোধিতার কারণ ব্যাখ্যায় মন্ত্রী বলেন, ‘এই হজে যে কত ম্যানপাওয়ার নষ্ট হয়। হজের জন্য ২০ লাখ লোক আজ সৌদি আরবে গিয়েছে। এদের কোনো কাম নাই। এদের কোনো প্রডাকশন নাই। শুধু রিডাকশন দিচ্ছে। শুধু খাচ্ছে আর দেশের টাকা দিয়ে আসছে।’


তিনি বলেন, ‘এভারেজে যদি বাংলাদেশ থেকে এক লাখ লোক হজে যায় প্রত্যেকের পাঁচ লাখ টাকা করে ৫০০ কোটি টাকা খরচ হয়।’
অনুষ্ঠানে হজের উৎপত্তি সংক্রান্ত বর্ণনায় আরো আপত্তিকর কথা বলেছেন আব্দুল লতিফ সিদ্দিকী। তিনি বলেন, ‘আব্দুল্লাহর পুত্র মোহাম্মদ (নবী হযরত মুহাম্মদ সাল্লাহু আলাইহিস সালাম) চিন্তা করল এ জাজিরাতুল আরবের লোকেরা কিভাবে চলবে। তারাতো ছিল ডাকাত। তখন একটা ব্যবস্থা করলো যে, আমার অনুসারিরা প্রতিবছর একবার একসঙ্গে মিলিত হবে। এর মধ্য দিয়ে একটা আয়-ইনকামের ব্যবস্থা হবে।’
মুসলিম বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম জামাত তাবলিগ জামাতের সমালোচনা করে আব্দুল লতিফ সিদ্দিকী বলেন, ‘তাবলিগ জামাত প্রতি বছর ২০ লাখ লোকের জমায়েত করে। নিজেদের তো কোনো কাজ নেই। সারা দেশের গাড়িঘোড়া তারা বন্ধ করে দেয়।’


তিনি তার বক্তৃতায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছেলে সজীব ওয়াজেদ জয়ের বিষয়ে বিরূপ মন্তব্য করেন। প্রবাসী বাংলাদেশিদের উদ্দেশ্যে মন্ত্রী বলেন, ‘কথায় কথায় আপনারা জয়কে টানেন কেন। জয় ভাই, সে কে? জয় বাংলাদেশ সরকারের কেউ নয়। তিনি কোনো সিদ্ধান্ত নেয়ারও কেউ নন। শুধু পরামর্শ দিতে পারে, কোনো কিছু বাস্তবায়নের ক্ষমতা তার নেই।’


টক শোতে যারা অংশ নেন তাদের ‘চুতমারানি ভাই’ আখ্যা দিয়ে মন্ত্রী বলেন, ‘যারা টক শোতে যায়, তারা টক-ম্যান। নিজেদের কোনো কাজ না থাকায় ক্যামেরার সামনে যেয়ে তারা বিড়বিড় করে। চু... ভাইদের আর কোনো কাজ নেই।’


অনুষ্ঠানে বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দিতে গিয়ে লতিফ সিদ্দিকী বারবার উত্তেজিত হয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে অসৌজন্যমূলক আচরণ করেন। এক সাংবাদিককে ধমক দিয়ে তিনি বলেন, ‘আমি কি তোমার মতো কথা বলব। আমি আমার মতো কথা বলব। তুমি এখানে আসলা কেন, তোমাকে কে বলেছে আসতে?’


প্রবাসীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, ‘আপনারা বিদেশে এসেছেন কামলা দিতে এবং সব সময় কামলাই দিবেন।’


প্রবাস থেকে প্রকাশিত পত্রপত্রিকাগুলোকে লতিফ সিদ্দিকী টয়লেট পেপার আখ্যায়িত করে টিভির টকশোতে অংশগ্রহণকারীদের ‘টক মারানি’ বলে গাল দেন। তিনি বলেন, ‘টকমারানিদের সঙ্গে চুতমারানিদের কোনো পার্থক্য নেই।’


এ সময় মন্ত্রী জানান, ‘আমি যাদের কাছ থেকে ৪ লাখ টাকা চাঁদা চেয়ে ১ লাখ পেয়েছি তাদের কোনো তদবির এখন রক্ষা করি না।’


ইসলামের অবিচ্ছেদ্য অঙ্গ হজ সম্পর্কে বিরূপ মন্তব্যের পর স্থানীয় প্রবাসীদের মধ্যে কড়া প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়। সংবাদটি দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে। ক্ষুব্ধ প্রবাসীরা মন্ত্রীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানান।


অন্যদিকে, যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের উপস্থিতিতেই সজীব ওয়াজেদ জয়ের বিরুদ্ধে মন্ত্রীর এ ধরনের বক্তব্যে বিস্মিত দলের কর্মী ও সমর্থকরা। সভাস্থলেই অনেকেই ক্ষোভ প্রকাশ করলে এক পর্যায়ে মন্ত্রী আব্দুল লতিফ সিদ্দিকী দ্রুত ঘটনাস্থল থেকে চলে যান।


প্রসঙ্গত, প্রধানমন্ত্রীর সফরসঙ্গী হিসেবে নিউ ইয়র্ক সফর করছেন ডাক, তার ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী আব্দুল লতিফ সিদ্দিকী।


               

 
 
 

সিলেট, সোমবার ২৯ সেপ্টেম্বর:
সিলেটের জনপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল দৈনিক সিলেট ডটকম আবারও হ্যাকারের কবলে পড়েছে। সোমবার রাত ৯টার দিকে ১৭ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু করে ২৯ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সকল নিউজ ডিলিট করে দিয়েছে। এনিয়ে তিন বার একই ঘটনা ঘটলো। আমরা প্রতিরোধ ব্যবস্থা চালিয়ে যাচ্ছি। জন্মলগ্ন থেকে দৈনিক সিলেট ডটকম দেশ মাটি ও মানুষের বিশ্বস্ত বন্ধু হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছে।আমরা নিরপেক্ষ নই, আমরা সত্য ও সুন্দরের পক্ষে।
আমরা বিশ্বাস করি আমরা কারো শত্রু নই, আমদেরও কোনো শত্রু নেই। তবে আমাদের প্রতিদ্বন্দি আছে আর এজন্য আমরা এগিয়ে যেতে পারছি।
আমরা সকল মহলের সহযোগিতা প্রত্যাশি।
               

 
 
 
 
 
কবিতা
শিল্প-সাহিত্
মিডিয়া
ইসলাম
Image Missing
 
 
বিনোদন
বিনোদন
বিচিত্রা
বিচিত্রা
মুক্তমঞ্চ
Image Missing
 
 
খেলাধুলা
খেলাধুলা
স্বাস্থ্য
স্বাস্থ্য
তথ্য-প্রযুক্তি
তথ্য-প্রযুক্তি
 
 
সংবাদদাতা
জীবন সদস্য
সম্পাদক
 
দেশ বিদেশ
 
 
 

ঢাকা: হজ-তাবলিগ নিয়ে বিরূপ মন্তব্য করায়  ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী আব্দুল লতিফ সিদ্দিকীর বক্তব্যের প্রতিবাদে বুধবার সারাদেশে বিক্ষোভ কর্মসূচি ঘোষণা করেছে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ।
এদিন বিকেল ৩টায় রাজধানীর জাতীয় প্রেসক্লাব চত্বরে সংগঠনটির বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে।
মঙ্গলবার গণমাধ্যমে পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।
বিবৃতিতে চরমোনাই পীর বলেন, ‘আমরা আগে থেকেই সরকারকে হুঁশিয়ার করে দিয়ে বলেছিলাম- আপনার নৌকায় নাস্তিক-মুরতাদরা উঠেছে। তাদেরকে নৌকা থেকে না নামালে নৌকা একবার ডুবলে আজীবনের জন্য আর ভাসবে না। বর্তমান সরকার ক্ষমতায় আসার পর থেকে মন্ত্রিপরিষদের কতিপয় মন্ত্রী ইসলামকে যেভাবে আঘাতের বস্তুতে পরিণত করেছে তাতে ধৈর্যের বাঁধ ভেঙে যাচ্ছে।
অবিলম্বে তিনি নাস্তিক-মুরতাদ মন্ত্রীদেরকে মন্ত্রিসভা থেকে বহিষ্কারের দাবি জানান।
পীর সাহেব বলেন, সরকারের বিরুদ্ধে যেভাবে ধর্মপ্রাণ দেশপ্রেমিক জনতার রুদ্ররোষ সৃষ্টি হচ্ছে তাতে মনে হচ্ছে সরকারের আখের রক্ষা হবে না। এমন জঘন্য বক্তব্য কোনো কাফের, ইসলামের শত্রুও দিয়েছে কিনা আমাদের জানা নেই। কিন্তু মুসলমান হয়ে লতিফ সিদ্দিকী কিভাবে এমন বক্তব্য দিলেন- যখন বিশ্বের লাখ লাখ মুসলমান আল্লাহর ঘরে হাজির হয়ে বলছেন “লাব্বাইক আল্লাহুম্মা লাব্বাইক”।’
অবিলম্বে এই নাস্তিক মন্ত্রীকে মন্ত্রিপরিষদ থেকে বহিষ্কার করে ইসলামের উপর আঘাত হানার দায়ে তাকে গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা করতে ব্যর্থ হলে দেশময় তীব্র আন্দোলনের দাবানল জ্বলে উঠবে বলেও হুঁশিয়ারি দেন তিনি।
       

 
 
 
 
 
 

নিউজডেস্ক: পহেলা অক্টোবর থেকে আবার শুরু হচ্ছে বৈধভাবে যুক্তরাষ্ট্রে যাওয়ার জন্য স্বপ্নের ডিবি লটারি।
বুধবার থেকে ২০১৬ সালের ডাইভারসিটি ভিসা (ডিবি) কর্মসূচি চালু হবে বলে জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।
তবে এবারো বাংলাদেশসহ ১৮টি দেশের নাগরিকরা ডিবিতে আবেদন করতে পারবেন না।
এর কারণ হিসেবে যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, এসব দেশ গত ৫ বছরে ৫০ হাজারের বেশি করে অভিবাসী যুক্তরাষ্ট্রে পাঠিয়েছে।
বাংলাদেশ ছাড়াও ভারত, পাকিস্তান, ব্রাজিল, কানাডা, কলম্বিয়া, চীন, ফিলিপাইন, ডমিনিক প্রজাতন্ত্র, ইকুয়েডর, এল সালভাদর, হাইতি, জ্যামাইকা, মেক্সিকো, নাইজেরিয়া, পেরু, দক্ষিণ কোরিয়া, ভিয়েতনাম ও যুক্তরাজ্যের (উত্তর আয়ারল্যান্ড বাদে)নাগরিকরা ডিবি ২০১৬ এর জন্য যোগ্য নয়।
অন্যান্য দেশের নাগরিকরা ১ অক্টোবর থেকে ৩ নভেম্বর পর্যন্ত আবেদন করতে পারবেন।
পরবর্তীতে কম্পিউটার নিয়ন্ত্রিত লটারির মাধ্যমে বিজয়ীদের বাছাই করা হবে।           

 
 
 
 
 
 

ঢাকা, ৩০ সেপ্টেম্বর: বিসিএসের প্রিলিমিনারি পরীক্ষার নতুন সিলেবাস প্রণীত হয়েছে। পরিবর্তিত সিলেবাস মঙ্গলবার সরকারি কর্ম কমিশনের (পিএসসি) ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হয়েছে।
এর আগে ১০০ নম্বরের এক ঘণ্টার বাছাই পরীক্ষা থাকলেও ৩৫তম বিসিএস থেকে এ পরীক্ষা হবে ২০০ নম্বরে, সময় থাকবে দুই ঘণ্টা।
নতুন সিলেবাস অনুযায়ী বাংলা ভাষা ও সাহিত্যে ৩৫ নম্বর, ইংরেজি ভাষা ও সাহিত্যে ৩৫, বাংলাদেশ বিষয়াবলী ৩০, আন্তর্জাতিক বিষয়াবলী ২০ এবং ভূগোল (বাংলাদেশ ও বিশ্ব), পরিবেশ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনায় ১০ নম্বরের পরীক্ষা হবে।
এছাড়া সাধারণ বিজ্ঞানে ১৫, কম্পিউটার ও তথ্য প্রযুক্তি ১৫, গাণিতিক যুক্তি ১৫, মানসিক দক্ষতা ১৫ এবং নৈতিকতা, মূল্যবোধ ও সুশাসন বিষয়ে ১০ নম্বরের প্রশ্ন থাকবে।
এক হাজার ৮০৩টি পদে নিয়োগ দিতে গত ২৩ সেপ্টেম্বর ৩৫তম বিসিএসের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে পিএসসি। এ বিসিএসের মাধ্যমে প্রশাসন ক্যাডারে ৩০০, পুলিশে ৫০ জনসহ সাধারণ ক্যাডারে মোট ৪৫৫ জনকে নিয়োগ দেয়া হবে।
এছাড়া প্রফেশনাল ও টেকনিক্যাল ক্যাডারে ৪৮৪ জন, শিক্ষা ক্যাডারে ৮২৯ জন এবং সরকারি শিক্ষক প্রশিক্ষণ কলেজে ৩৫ জনকে নিয়োগ দেয়া হবে। এবছর ডিসেম্বরের মাঝামাঝি সময়ে ৩৫তম বিসিএসের বাছাই পরীক্ষা নেয়া হবে বলে পিএসসি জানিয়েছে।           

 
 
 
 
 
 

চট্টগ্রাম, ৩০ সেপ্টেম্বর: ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্য-প্রযুক্তি মন্ত্রী আবদুল লতিফ সিদ্দিকীকে মুরতাদ ঘোষণা করেছেন হেফাজতে ইসলামের আমির আল্লামা শাহ্‌ আহমদ শফী।
মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে তিনি এ ঘোষণা দেন। পবিত্র হজ পালনের জন্য বর্তমান মক্কায় অবস্থান করছে হেফাজত আমির।
লতিফ সিদ্দিকী ইসলামের মৌলিক বিধান পবিত্র হজ, হাজি সাহেবান, মহানবী (সা.) এবং পবিত্র আরববাসী সম্পর্কে কুরুচিপূর্ণ ও কটাক্ষ করে যে বক্তব্য দিয়েছে তাতে তিনি মর্মাহত হয়েছেন বলে বিবৃতিতে উল্লেখ করেন আল্লামা শফী।
মন্ত্রীর এই বক্তব্যের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে আল্লামা শফী বলেন, লতিফ সিদ্দিকী ইসলামী শরীয়ত বিধান অনুযায়ী ইসলামের মৌলিক স্তম্ভ পবিত্র হজকে কটাক্ষ করায় সে মুরতাদ হয়ে গেছে।
তিনি বলেন, হজ মহান আল্লাহ প্রদত্ত বিধান। এই বিধানকে ফরজ করে পবিত্র কোরআনে আয়াত নাজিল হয়েছে। আর মহানবী (সা.) আল্লাহ প্রেরিত সর্বশেষ ও সর্বশ্রেষ্ট নবী ও রাসূল। সকল নবীদের সরদার।
হেফাজত আমির বলেন, একটি মুসলিম প্রধান দেশের মন্ত্রী হয়ে মহানবী (সা.), হজ, তাবলিগ জামায়াত ও আরববাসীদের নিয়ে কটূক্তি করে চারটি মৌলিক অপরাধ করে ইসলাম ধর্ম থেকে খারিজ হয়ে গেছে লতিফ সিদ্দিকী। সে মুরতাদ। ইসলামে মুরতাদের শাস্তি মৃত্যুদণ্ড।
অবিলম্বে লতিফ সিদ্দিকীকে মন্ত্রিসভা থেকে বহিষ্কারের দাবি জানিয়ে তিনি বলেন, ‘কোনো মুরতাদ ধর্মদ্রোহী তৌহিদী জনতা বাংলাদেশের মন্ত্রিসভায় থাকতে পারবে না। তাকে মন্ত্রিসভা থেকে অপসারণ করতে হবে।’
আল্লামা শফী বলেন, প্রধানমন্ত্রী, রাষ্ট্রপতি, মন্ত্রিপরিষদ সদস্য, এবং সংসদ সদস্যরাও হজ পালন করেন। হাজিদের নিয়ে বিরুপ মন্তব্য কোনো বিধর্মীরাও করেনি। লতিফ সিদ্দিকী মুসলিম উম্মাহর হৃদয়ে আঘাত করেছে। তাকে ক্ষমা করা যায় না।
তিনি বলেন, বাংলাদেশে যে হারে নাস্তিক ও ধর্মদ্রোহীদের আস্ফালন শুরু হয়েছে তাতে মনে হয় দেশের ধর্মপ্রাণ মানুষের সঙ্গে তারা যুদ্ধ ঘোষণা করেছে। হেফাজতে ইসলাম যে ১৩ দফা দাবি পেশ করেছিল, তা যদি সরকার বাস্তবায়ন করতো লতিফ সিদ্দীকি এতবড় দৃষ্টতা দেখানোর সাহস পেত না।
হেফাজত আমির হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেন, ‘আমরা অনেক ধৈর্য্য ধারণ করেছি। মুসলমানদের ধৈর্য্যের সীমা শেষ হয়ে গেছে। আমাদেরকে রাজপথে নামতে বাধ্য করবেন না। মহানবী (সা.) ও ধর্মঅবমাননার সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ডের বিধান রেখে সংসদে আইন পাশ কর্বন। জনগণ ক্ষোভে ফুঁসে উঠলে ক্ষমতায় থাকতে পারবেন না।’
তিনি বলেন, ‘সরকার ও প্রশাসনের সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ যদি তার বিরুদ্ধে যথাযথ শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ না করে, তাহলে তাকে সালমান রুশদী ও তাসলিমা নাসরিনের পরিণতি ভোগ করতে হবে। আল্লাহর জমিন বাংলাদেশের মাটিতে তাকে চলতে দেয়া হবে না।’

 
 
 
 
 
 

নিউইর্য়ক:যুক্তরাষ্ট্র সফররত মৌলভীবাজার জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি, জেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও মৌলভীবাজার চেম্বার অব কমার্সের সভাপতি মো: কামাল হোসেন এর সাথে যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী মৌলভীবাজারবাসীর এক মতবিনিময় সভা গত ২২ শে সেপ্টেম্বর রোববার নিউইর্য়কের খামার বাড়ী রেষ্টুরেন্টে আনন্দঘন পরিবেশে অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন হাজী আব্দুল মুসাব্বির এবং সভা পরিচালনা করেন সুহান আহমেদ টুটুল। অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কানাডা আওয়ামীলীগের সভাপতি মাহমুদুর রহমান, বাংলাদেশ সোসাইটির সভাপতি কামাল আহমেদ, মৌলভীবাজার আওয়ামীলীগ এর সহসভাপতি সৈয়দ সিদ্দিকুল হাসান ও যুক্তরাষ্ট্র জাসদের সভাপতি আব্দুল মোছাব্বির।
সভার শুরুতে সদ্য প্রয়াত কুলাউড়ার সন্তান আলবেনী বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র আবীর ইসলামের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করা হয়। সভায় মৌলভীবাজার চেম্বার অব কমার্সের সাবেক সভাপতি মরহুম আবদুল ওয়াদুদ, মরহুম বেলাল তরফদারসহ প্রবাসে এবং দেশে মৃত্যুবরণকারী সকল মৌলভীবাজারবাসীর আত্মার মাগফেরাত কামনা করে দাড়িয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়।
সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন আজমল হোসেন কুনু, বদরুন নাহার খান মিতা, আতাউর রহমান সেলিম, জে মোল্লা সানী, রশিদ আহমদ, ছালেহ চৌধুরী, লিয়াকত হোসেন, মুক মিয়া, নুরে আলম জিকো, সিরাজুল ইসলাম বেগ, সৈয়দ এনায়েত আলী, মখন মিয়া, নজরুল ইসলাম, সৈয়দ সাদিক আহমদ, শাহান খান, শফিকুল ইসলাম, নায়েকুল তরফদার, সৈয়দ মামুন, আহমদে জিলু, শাফায়েত আহমেদ, সুলেমান আলা, আব্দুল করিম, জাহাঙ্গীর আলম, পারভেজ আহমেদ, মিজান চৌধুরী, হেলাল তরফদার, লিটন আহমদ, শাহীন আহমদ, মোস্তাক চৌধুরী, মঈনুর রহমান সোয়েব, আতার হোসেন প্রমুখ।
অনুষ্ঠানে মো: কামাল হোসেন কে আন্তরিকভাবে বরণ করে নেন মৌলভীবাজারবাসী।
এ সভা আয়োজনের জন্য মো: কামাল হোসেন যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী মৌলভীবাজারবাসীর প্রতি গভীর কৃতজ্ঞতা জানান।
অনুষ্ঠানে বক্তারা ঐক্যবদ্ধ ভাবে কাজ করে মৌলভীবাজারবাসীর সুনাম অক্ষুন্ন রাখার জন্য সকলের প্রতি আহ্বান জানান।
অনুষ্ঠানে মৌলভীবাজারসহ বৃহত্তর সিলেটের বিপুল সংখ্যক প্রবাসী যোগ দেন। অনুষ্ঠান শেষে সবাইকে নৈশভোজে আপ্যায়িত করা হয়।
উল্লেখ্য, মৌলভীবাজার চেম্বার অব কমার্সের সভাপতি মো: কামাল হোসেন প্রধানমন্ত্রীর সফরসঙ্গী হয়ে সম্প্রতি নিউইয়র্ক আসেন।

 
 
 
 
 
 

পেনসিলভানিয়া: দুই কিশোর ছাত্রদের সাথে শারীরিক সম্পর্ক স্থাপনের কারণে যুক্তরাষ্ট্রের পেনসিলভানিয়ার এক তরুণী শিক্ষিকাকে ২৩ মাসের  কারাদণ্ড দিয়েছে একটি আদালত।
লরেন হারিংটন-কুপার (৩২) নামের ওই বিবাহিত শিক্ষিকা অন্তত দুজন কিশোর ছাত্রের সাথে শারীরিক সর্ম্পক স্থাপন করে এবং অপর একজনকে তার উন্মুক্ত বুক দেখায়।
ছাত্রদের প্রলুব্ধ করার জন্য সে বলতো-‘ তোমাদের যে ক্যান্ডি দরকার তা এখানেই আছে।’
কুপারের বিরুদ্ধে ১৮ বছর বয়সী এক ছাত্রের সাথে গাড়িতে শারীরিক সম্পর্ক স্থাপন, পেনসিলভানিয়ার ওয়াইওমিং ভ্যালি ওয়েস্ট স্কুলের ১৭ বছর বয়সী আরেক ছাত্রকে পড়ানোর ছলে শারীরিক সম্পর্ক স্থাপনে বাধ্য করাসহ নানা ধরণের যৌন কার্যকলাপের অভিযোগ প্রমাণিত হয়েছে।
এছাড়া ১৭ বছর বয়সী আরেক ছাত্রকে সে তার উন্মুক্ত বুক প্রদর্শন করে বলে জানান প্রসিকিউটররা।
ইংরেজির এই শিক্ষিকার বিরুদ্ধে এসব অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় তাকে ২৩ মাসের কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে।
স্কুলের ভেতরেও সে শারীরিক সম্পর্কে জড়িয়েছে বলে জানান প্রসিকিউটররা।

রবিবার রায় ঘোষণার দিন হাতকড়া পরিয়ে তাকে আদালতে হাজির করা হয়।
কুপারের আইনজীবীরা জানান, তিনি ঘটনা স্বীকার করেছেন এবং এজন্য অনুতপ্ত। তাই তিনি সাজাকে মাথা পেতে নিয়েছেন।
প্রসিকিউটর জেনি রবার্টস বলেন, এসব ছাত্রের জিম্মাদার ছিলেন কুপার। অথচ সে সুযোগ কাজে লাগিয়ে নিজের আদিম লালসা চরিতার্থ করেছে।
১৮ বছর বয়সী ছাত্রের সাথে শারীরিক সম্পর্কের খবর জানাজানি হয়ে গেলে গত ডিসেম্বরে কুপারকে গ্রেপ্তার করা হয়। এরপর তদন্তে অন্যান্য ঘটনাও বেরিয়ে আসে।

সূত্র: হাফিংটন পোস্ট               

 
 
 
 
 
 

নিউজডেস্ক:
আমৃত্যু কারাদণ্ডপ্রাপ্ত জামায়াতে ইসলামীর সাবেক আমির গোলাম আযম গুরুতর অসুস্থ বলে জানিয়েছেন তার স্ত্রী সৈয়দা আফিফা আযম।
রোববার এ তথ্য সংবাদ মাধ্যমকে জানানো হয়।
সৈয়দা আফিফা আযম বলেন, ‘শনিবার আমার স্বামী অধ্যাপক গোলাম আযমের সঙ্গে নিয়মিত সাক্ষাতের দিন ছিল। বিএসএমএমইউ এর প্রিজন সেলে বিকেলে দেখা করলাম। তার শারীরিক অবস্থা অত্যন্ত নাজুক, এযাবৎকালের সবচেয়ে খারাপ অবস্থায় দেখা গেল। শারীরিকভাবে তিনি এতই দুর্বল হয়ে পড়েছেন যে উনাকে বিছানা থেকে দুইজনে ধরে উঠাতে হয়েছে।’
তিনি জানান, গোলাম আযমের দৃষ্টিশক্তি অনেক ক্ষীণ হয়ে এসেছে,  শ্রবণশক্তি অনেক হ্রাসপ্রাপ্ত এবং গলার আওয়াজ অত্যন্ত ক্ষীণ। কথা বলতে কষ্ট হচ্ছে এবং মুখের কাছে কান রেখে কথা শুনতে হচ্ছে।
আফিফা আযম আরো জানান, হাত-পা-ঘাড়-মাথা এগুলো নাড়ানোর শক্তিও তার নেই। দিন দিন ওজন কমছে, শুকিয়ে কঙ্কালসার হয়ে গেছেন। এ পর্যন্ত ছয়বার বাথরুমে পড়ে গেছেন।
অভিযোগ করে গোলাম আযমের স্ত্রী জানান, গত একমাসেরও কম সময়ের মধ্যে গোলাম আযম তিনবার পড়ে গেছেন। খাওয়া-দাওয়া করতেই পারছেন না বলা চলে। তার মারাত্মক এই শারীরিক অবনতির কথা হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ বা জেল কর্তৃপক্ষ কেউই তাদের জানায়নি।
তিনি আশঙ্কা প্রকাশ করে বলেন যে, এই ধরনের অবজ্ঞা, অযত্ন, অবহেলা, উপেক্ষা ও অমানবিক আচরণের ফলে যে কোনসময়ে মারাত্মক পরিস্থিতি সৃষ্টি হতে পারে।
গোলাম আযমের সুচিকিৎসা ও সেবা নিশ্চিত করার জন্য তার মুক্তি দিয়ে পরিবারের সার্বিক তত্ত্বাবধানে রাখার অনুমতি দেয়ার জন্য যথাযথ কর্তৃপক্ষের প্রতি জোর অনুরোধ করেছেন সৈয়দা আফিফা আযম।
       

 
 
 
 
 
 

ঢাকা, ২৯ সেপ্টেম্বর: জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের ৬৯তম অধিবেশনে যোগ দিয়ে দেশে ফেরার পধে নিউ ইয়র্ক থেকে লন্ডনের উদ্দেশ্যে রওনা হয়েছেন  প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

সোমবার নিউ ইয়র্কের স্থানীয় সময় সকাল সোয়া ৭টায় জন এফ কেনেডি বিমানবন্দর থেকে ইউএস এয়ারের একটি ফ্লাইটে যুক্তরাষ্ট্র ত্যাগ করেন প্রধানমন্ত্রী।

জাতিসংঘে বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি একে মোমেন এবং যুক্তরাষ্ট্রে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ জিয়াউদ্দিন বিমানবন্দরে তাকে বিদায় জানান।

দুই দিন লন্ডনে অবস্থানের পর বৃহস্পতিবার ঢাকা পৌঁছানোর কথা রয়েছে প্রধানমন্ত্রীর।

গত ২১ সেপ্টেম্বর এমিরেটস এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইটে নিউ ইয়র্কের উদ্দেশে রওনা হয়েছিলেন তিনি।               

 
 
 
 
 
 

ঢাকা: “আমি হজ্ব ও তাবলীগের ঘোর বিরোধী” এমন বক্তব্য দিয়ে মন্ত্রী আবদুল লতিফ সিদ্দিকী ইসলাম থেকে খারিজ হয়ে গেছেন বলে মন্তব্য করেছেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আমীর মুফতী সৈয়দ মোহাম্মদ রেজাউল করীম।

তিনি বলেন, হজ্ব ইসলামের মূল পাঁচ ভিত্তির অন্যতম ভিত্তি। এখন থেকে তিনি নিজেকে মুসলমান হিসেবে পরিচয় দিতে পারবে না। অবিলম্বে মন্ত্রী পরিষদ থেকে লতিফ সিদ্দিকীকে বহিষ্কার করে তাকে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিতে তিনি সরকারের প্রতি আহ্বান জানান।

সোমবার বিকেলে ইসলামী আন্দোলন সিরাজগঞ্জ জেলা শাখার উদ্যোগে সম্প্রচার নীতিমালা বন্ধ এবং বিচারপতিদের অভিশংসন সংসদে ফিরিয়ে নেয়ার প্রতিবাদে আয়োজিত জনসভায় তিনি এসব কথা বলেন।

শহরের স্বাধীনতা স্কয়ার চত্বরে জেলা সভাপতি মুফতি মুহিব্বুল্লাহর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত জনসভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন- কেন্দ্রীয় দপ্তর সম্পাদক মাওলানা লোকমান হোসাইন জাফরী, সেক্রেটারি মুফতি আল-আমিন সিরাজী, মাওলানা আবুল কালাম, মাওলানা আব্দুর রাজ্জাক, মাওলানা আব্দুস সামাদ, ছাত্রনেতা আব্দুল্লাহ আল মামুন প্রমুখ।

 
 
 
 
 
 

তৈয়বুর রহমান টনি নিউ ইর্য়কঃ-
জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে যোগদান উপলক্ষে গনপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নিউইয়র্ক আগমন উপলক্ষ্যে যুক্তরাষ্ট্র মহিলা আওয়ামী লীগের উদ্দ্যোগে এক সভা অনুষ্ঠিত হয় । প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক আগমনকে সার্থক ও সফল করার জন্য এবং জাতিসংঘে বাংলাদেশর ৪০ বছর পূর্তি অনুষ্ঠান সমূহ সফল করতে, এক প্রস্তুতির সভর আয়োজন করেন।

যুক্তরাষ্ট্র মহিলা আওয়ামী লীগের উদ্দ্যোগে গত বৃহসপতিবার ১৮ সেপ্টম্বর  সন্ধ্যায় জ্যাকসন হাইটস এর পালকী পার্টি সেন্টারে এক সভার আয়োজন করা হয়। সভায় উস্হিত ছিলেন ও বক্তব্য রাখেন যুক্তরাষ্ট্র মহিলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আমেনা পারভীন, উপদেষ্টা শেফু রহমন, সহ-সভাপতি মিনা ইসলাম, সহ সাধারণ সম্পাদিকা নাফিসা নূর সাথী, সাংগঠনিক সম্পাদিকা নার্গিস আহমদ বিউটি ও লিলি আখতার, আইন সম্পাদিকা মাশারাত মুজিব, নুরুন আলম, বন সম্পাদিকা হ্যাপি আখতার এবং সদস্যা নূরূন নাহার নেলী, ইসরাত জাহান, শাহিদা পারভীন (কল্পনা), সেলিনা জামান, এলিজা খাতুন, রিফাত সুলতানা প্রমুখ।

সভায় আগামী ২২শে সেপ্টেম্বর জে.এফ.কে. বিমান বন্দুরে অভ্যর্থনা জানাতে এবং আগামী ২৭শে সেপ্টেম্বর জাতি সংঘের সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে ভাষন দান কালে, জাতি সংঘের সম্মুখে শান্তি সমাবেশ যোগদান সহ ঐ দিন সন্ধ্যায়, প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার সম্মানে প্রবাসীদের দেওয়া ম্যানহাটনের টাইম স্কায়ারের ম্যারিয়ট মার্কি হোটেলে সার্বজনীন গন সংবর্ধনা সফল করতে সকলের সহযোগিতা কামনা করা হয়।               

 
 
 
 
যোগাযোগ করুন..
01712 247 900

dainiksylhet@gmail.com